Wed. Apr 24th, 2024

পরিচালক প্রিয়দর্শী ব্যানার্জীর স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি ‘ধূসর গোধূলি’ শীঘ্রই মুক্তি পেতে চলেছে।

By Desk Team Jun 20, 2021

পরিচালক প্রিয়দর্শী ব্যানার্জীর স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি ‘ধূসর গোধূলি’ শীঘ্রই মুক্তি পেতে চলেছে। এই ছবিটি একজন বৃদ্ধার গল্প যিনি অ্যালজাইমার রোগে আক্রান্ত। এই বৃদ্ধার চরিত্রে অভিনয় করেছেন কিংবদন্তি অভিনেত্রী সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়।বয়স কালে মানুষের মধ্যে যে ভুলে যাওয়ার প্রবণতাটা হয়, অনেক সময় শুধু বয়স কালে নয় ছোটবেলা থেকে শর্ট টার্ম মেমোরি লস এর কারণে অনেকেই অনেক কিছু ভুলে যান। এই গল্পটা ঠিক একই রকম। সেই বৃদ্ধাটি অ্যালজাইমার রোগের কারণে সবকিছু ভুলে যান। কিংবদন্তি অভিনেত্রী সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের এটিই সম্ভবত প্রথম স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি। তার এই চরিত্র বৃদ্ধা মহিলাটি ও এ রোগের কারণে সবকিছু ভুলে যান এবং তার পুত্র এবং পুত্রবধূ আইটি কোম্পানিতে কাজ করার দরুন তাকে সেই মতো সময়ও দেন না। তার এই রোগের কারণে তার একমাত্র নাতি কে বোর্ডিং এ ভর্তি করেন তার পুত্র এবং পুত্রবধূ।বৃদ্ধার পুত্র এবং পুত্রবধূর চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিজিৎ মজুমদার এবং সম্পূর্ণা রায়। একদিন বৃদ্ধা পথ ভুলে অন্য একটি বাড়িতে চলে যান এবং সেখান তিনি তার পুত্রবধুর সমবয়সী এক মহিলাকে দেখেন যাকে দেখে তার নিজের পুত্রবধূর কথা মনে পড়ে। তিনি এটাই ভাবতে থাকেন তার পুত্রবধূ যদি এই মহিলাটির মতন হত। বৃদ্ধা যেই বাড়িতে পথ ভুলে গেছিলেন সেই বাড়ির মহিলাটির চরিত্রে অভিনয় করেন অভিনেত্রী কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃদ্ধা পথ ভুলে যেই বাড়িতে যান সেই বাড়ির মহিলাটির একটি পুত্র সন্তান ছিল যার বয়স তার নাতির বয়সের মত। বৃদ্ধা তাকেই নিজের নাতির মতো আদর-ভালোবাসা দেন। এই ছোট্ট বাচ্চাটির  চরিত্রে যিনি অভিনয় করেছেন তার নাম সার্থক মুখার্জী। বৃদ্ধা পথ ভুলে একবেলা ওই বাড়িতে থাকার অভিজ্ঞতা, এরপর তাঁর পুত্র অফিস থেকে ফেরার পথে সন্ধ্যেবেলায় তাকে সেই ভুল করে যাওয়া বাড়ি থেকে তাঁকে ফিরিয়ে নিয়ে আসা দেখানো হয়েছে এই স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবিটিতে। এই ছবিটিতে একটি ডাক্তারের চরিত্রে অভিনয় করেছেন বিক্রম কুমার।


এই ছবিটি প্রযোজনা করেছেন মুখরোচক কোম্পানির কর্ণধার শ্রী প্রণব চন্দ্র। এটিই তার প্রথম প্রযোজনা।  তার প্রযোজনা সংস্থা চন্দ্র এন্টারটেনমেন্ট নেটওয়ার্ক এই ছবিটি প্রযোজনা করে।


মুখরোচক গার্ডেনের অসাধারণ লোকেশনে এই স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবিটির শুটিং করা হয়। প্রযোজক শ্রী প্রনব চন্দ্রের তরফ থেকে সবদিক থেকে অসংখ্য সহযোগিতা পাওয়া যায়। পরিচালক প্রিয়দর্শী ব্যানার্জী  প্রযোজক শ্রী প্রণব চন্দ্রকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তাদের এই প্রচেষ্টায় এভাবে তাদের পাশে থাকার জন্য। এই ছবিটিতে একটি রবীন্দ্রসঙ্গীত গাইবেন কণ্ঠশিল্পী জয়তী চক্রবর্ত্তী।


অতিমারির কারণে এই ছবিটির পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ বন্ধ ছিল। তবে বর্তমানে লকডাউন কিছুটা শিথিল হওয়ায় এডিটিং এর কাজ চলছে। এডিটিং এর কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর ডাবিংয়ের কাজ শুরু হবে আগামী জুলাই মাসে। এরপর পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ। পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ শেষ হলেই এই ছবিটি মুক্তি পাবে।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *